• শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৬:০৩

স্বাগতিক দলকে দর্শক সারিতে রেখে পঞ্চগড়ে জেলা প্রশাসক গোল্ডকাপ উদ্বোধন

প্রতিনিধি: / ১৯ দেখেছেন:
পাবলিশ: বুধবার, ১২ জুন, ২০২৪

সাইদুজ্জামান রেজা,পঞ্চগড়ঃ স্বাগতিক কোন দল ছাড়াই পঞ্চগড়ে জেলা প্রশাসক গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট শুরু হয়েছে। দীর্ঘদিন পর কোন টুর্নামেন্ট শুরু হলেও স্বাগতিক দলকে দর্শক সারিতে রেখেই উদ্বোধন করা হয়েছে টুর্নামেন্ট টি। মঙ্গলবার (১১ জুন) বিকেলে জেলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে পঞ্চগড় বীর মুুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম স্টেডিয়ামে টুর্নামেন্টের উউদ্ধোধন করা হয়।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জলা প্রশাসক জহুরুল ইসলাম, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার সাদাত সম্রাট, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম এন্ড অপস) কনক কুমার দাস, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহনেওয়াজ প্রধান শুভ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।পরে জেলা প্রশাসক জহুরুল ইসলাম বেলুন উড়িয়ে টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন।
উদ্বোধনী খেলায় রাজশাহী কিশোর ফুটবল একাডেমি ৩-২ গোলে জয়পুরহাট ফুটবল একাডেমিকে পরাজিত করে। খেলায় সর্বোচ্চ দুইটি গোল করে ম্যান অব দ্যা ম্যাচ নির্বাচিত হন রাজশাহী কিশোর ফুটবল একাডেমির খেলোয়ার রাফাইল। এছাড়া জয়পুরহাট ফুটবল একাডেমির খেলোয়ার সলেমান চিল্লা ও বাবলু একটি করে গোল করেন। এবারের টুর্নামেন্টে রাজশাহী, ঠাকুরগাঁও, কুষ্টিয়া, সৈয়দপুর, গাইবান্ধা, রংপুর ও বগুড়া, জয়পুরহাট ফুটবল দল খেলায় অংশ নিয়েছে। আগামী ২৮ জুন টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।
এদিকে, পঞ্চগড়ে সম্ভাবনাময়ী ফুটবলার থাকতেও স্বাগতিক দল ছাড়াই জেলা প্রশাসক গোল্ড কাপ টুর্নামেন্ট ২০২৪ শুরু হওয়ায় ক্রীড়াপ্রেমীদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। স্বাগতিক দল ছাড়াই এতো বড় টুর্নামেন্টের আয়োজন করায় ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে জেলার নতুন পুরাতন ফুটবলার ও ফুটবলপ্রেমি মানুষের মাঝে।
তরুণদের অনেকেই সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে এই টুর্নামেন্ট বয়কটেরও ডাক দিয়েছেন। এছাড়া আগে স্টেডিয়াম কানায় কানায় পরিপূর্ণ থাকলেও এবার তেমন দর্শক ছিলো না। খেলার শুরু থেকে দুইটি গ্যালারির সিংহভাগ অংশ ছিলো ফাঁকা। অন্যদিকে খেলা দেখতে আসা দর্শকদের সাধারণ গ্যালারী ২০ টাকা ও ২য় শ্রেণীর গ্যালারিতে ৫০ ও ভিআইপি গ্যালারীতে ১০০ টাকার টিকিট করা হয়েছে। খেলার শুরুতে টিকেটের দামের কারণে দর্শক স্টেডিয়ামে না আসতে চাইলেও পরে মুল ফটক উন্মুক্ত করে দেয়া হয়। এতে কিছু মানুষ মাঠে ঢোকায় দর্শকের উপস্থিতি কিছুটা দেখা মেলে।
পঞ্চগড় টুকু ফুটবল একাডেমির পরিচালক টুকু রেহমান বলেন, দীর্ঘদিন পর জেলা প্রশাসক ফুটবল টুর্নামেন্ট হচ্ছে এটি আশার কথা। তবে আমাদের পঞ্চগড়ের খেলোয়াররা খেলার সুযোগ পায় নি। তারা এখন দর্শক সারিতে বসে খেলা দেখছে। এটি কষ্টদায়ক।
তবে নিজেদের ব্যর্থতা স্বীকার করে জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার সাদাত সম্রাট বলেন, আমরা একটি স্বাগতিক দল রাখার জন্য পৌর পরিষদ, জেলা পরিষদ সহ অনেককে বার বার অনুরোধ করেছি কিন্তু পারিনি। এজন্য টুর্নামেন্ট শুরু করতে দেরীও হয়েছে। আমরা চেষ্টা করবো আগামীতে যেন স্বাগতিক দল থাকে। সেই সাথে ভালো খেলা উপহার দেয়ার।


এই বিভাগের আরো খবর
https://www.kaabait.com