• শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৫:০৫

সিরিজ জয় আফগানিস্তানের

প্রতিনিধি: / ৭৩ দেখেছেন:
পাবলিশ: মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ, ২০২৪

স্পোর্টস: আগের দুই ম্যাচে দলকে টেনেছেন অভিজ্ঞ দুই ক্রিকেটার মোহাম্মদ নাবি ও রাশিদ খান। শেষ ম্যাচে এগিয়ে এলেন অন্যরা। দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস খেললেন ইব্রাহিম জাদরান। বল হাতে ক্যারিয়ার সেরা পারফরম্যান্স উপহার দিলেন আজমাতউল্লাহ ওমারজাই। আয়ারল্যান্ডকে উড়িয়ে সিরিজ জিতে নিল আফগানিস্তান। তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের শেষটিতে আয়ারল্যান্ডকে ৫৭ রানে হারাল আফগানিস্তান। প্রথম ম্যাচ হেরেও তারা সিরিজ জিতে নিল ২-১ ব্যবধানে। শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সোমবার আফগানিস্তান ২০ ওভারে তোলে ১৫৫ রান। আইরিশরা গুটিয়ে যায় স্রেফ ৯৮ রানে। আফগানদের বিপক্ষে এই সংস্করণে সিরিজ জয় অধরাই রইল আইরিশদের। চাপের মধ্যে দলকে শেষ পর্যন্ত টেনে নিয়ে ৫১ বলে ৭২ রানে অপরাজিত থাকেন ইব্রাহিম। ৫ চার ও ও ছক্কার ইনিংসটিতে ম্যাচের সেরা তিনিই। এই সংস্করণে তার আগের সর্বোচ্চ ছিল মাসখানেক আগে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৬৭। চার ওভারে স্রেফ ৯ রানে চার উইকেট নেন ওমারজাই। এই সংস্করণে দেশে হয়ে প্রথমবার এই স্বাদ পেলেন তিনি। এত কম রানে টি-টোয়েন্টিতে চার উইকেট নেই আফগানিস্তানের আর কোনো পেসারের। টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামা আফগানিস্তান তৃতীয় ওভারে হারায় বড় ভরসা রাহমানউল্লাহ গুরবাজকে (৬)। দুই ছক্কায় ১৯ বলে ১৯ করে আউট হন আরেক ওপেনার সেদিকউল্লাহ আটাল। আগের দুই ম্যাচে শূন্য রানের পর এবার তিন রান করে ফেরেন ওমারজাই। পাঁচে নেমে ইব্রাহিমকে কিছুটা সঙ্গ দেন মোহাম্মদ ইসহাক। এই কিপার-ব্যাটসম্যানের ইনিংস থামে ২২ বলে ২৭ করে। নাবি-রাশিদরা পারেননি এ দিন কার্যকর ইনিংস খেলতে। ইব্রাহিমের ইনিংসই ছিল দলের মেরুদন্ড। উইকেট আগলে রাখার পাশাপাশি রান বাড়ানোর কাজটিও করেন তিনিই। শেষ দিকে একটি করে ছক্কা ও চার মারেন ইজাজ আহমাদ আহমাদজাই। শেষ তিন ওভার থেকে ৩৭ রান তোলে আফগানিস্তান। রান তাড়ায় শুরু থেকেই ধুঁকতে থাকা আয়ারল্যান্ড লড়াই জমাতে পারেনি। ফাজালহাক ফারুকি ও নাভিন-উল-হাক প্রথম তিন ওভারে তিন উইকেট নেওয়ার পর আর মাথা তুলে দাঁড়াতে পারেনি আইরিশরা। মিডল অর্ডারে ছোবল দেন ওমারজাই। কিছুটা লড়াই করে ২৩ বলে ২৮ করেন কার্টিস ক্যাম্পার, গ্যারেথ ডেলানির ব্যাট থেকে আসে ২১, হ্যারি টেক্টর করেন ১৬। বাকি ৮ ব্যাটসম্যানের সম্মিলিত রান মোটে ২৬। ওমারজাইয়ের চার উইকেটের পাশাপাশি নাভিনের শিকার ১০ রান তিন উইকেট। আগের দুই ম্যাচে সাত উইকেট শিকারি রাশিদ খান এবার চার ওভারে ১২ রান দিয়ে নেন এক উইকেট। চোট কাটিয়ে চার মাস পর ফিরেই ম্যান অব দা সিরিজ এই লেগ স্পিন তারকা।


এই বিভাগের আরো খবর
https://www.kaabait.com