• বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ১০:২৪
সর্বশেষ :
কপিলমুনির হাউলী প্রতাপকাঠির দুটি স্কুল থেকে ৪০ টি ফ্যান চুরি দিল্লিতে তাপপ্রবাহে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২০ নিরাপত্তা নিশ্চিতের আহবান লোহিত সাগরে উত্তর কোরিয়ার সাথে প্রতিরক্ষা চুক্তি স্বাক্ষরের একদিন পর পুতিন ভিয়েতনামে প্রতি পাঁচজনের মধ্যে চারজন জলবায়ুর প্রভাব মোকাবিলায় পদক্ষেপ চায় : জাতিসংঘ ওয়ার্ক পারমিট না দেওয়ায় ভারত ছাড়লেন ফরাসি সাংবাদিক ভারতে বিষাক্ত অ্যালকোহল পানে অন্তত ৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে আমরাও পাল্টা গুলি চালাব মিয়ানমার থেকে গুলি আসলে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বায়ু দূষণে বাংলাদেশে বছরে ১৯ হাজারেরও বেশি শিশুর মৃত্যু: ইউনিসেফ বাজেটে প্রস্তাব পুনর্বিবেচনার সম্ভাবনা আছে: আবুল হাসান মাহমুদ আলী

যেসব কারণে শরীরে রক্ত জমাট বাধে

প্রতিনিধি: / ১১৬ দেখেছেন:
পাবলিশ: রবিবার, ৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

স্বাস্থ্য: রক্ত সংবহনতন্ত্রে গুরুত্বপূর্ণ দুই অংশ হল শিরা এবং ধমনী। ধমনীর মাধ্যমে অক্সিজেনযুক্ত বিশুদ্ধ রক্ত শরীরের প্রতিটি অঙ্গে ছড়িয়ে পড়ে, আর শিরা দূষিত রক্ত বহন করে নিয়ে যায়। কোথাও কেটে গেলে যদি রক্ত বেরোয় তা হলে শরীরে উপস্থিত বিভিন্ন প্রোটিনের সাহায্য তা জমাট বেঁধে যায়। তবে অস্বাভাবিক ভাবে রক্তনালির ভেতরে রক্ত জমাট বাঁধা বিপজ্জনক। শিরা, ধমনী কিংবা পেশিতে রক্ত জমাট বাঁধলে শরীরে রক্ত সঞ্চালন ব্যাহত হয়। সেই অংশের কোষগুলির মৃত্যু হয় এবং অঙ্গের কার্যক্ষমতা পুরোপুরি বা আংশিক ভাবে নষ্ট হতে শুরু করে। এই প্রক্রিয়ার নাম থ্রম্বোএম্বলিজম। শরীরে রক্ত জমাট বাঁধার কারণে ব্যক্তির ধীরে ধীরে প্রচÐ শ্বাসকষ্ট, বুকে ব্যথা ও কাশি শুরু হয়। শরীরের বিভিন্ন অংশে হতে পারে থ্রম্বোএম্বলিজম। ব্রেন স্ট্রোক ও হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকিও থাকে। থ্রম্বোএম্বলিজম মৃত্যুও ডেকে আনে। কী কী কারণে শরীরে রক্ত জমাট বাধে?
১. বয়সজনিত কারণে অনেকের শরীরে রক্ত জমাট বাঁধতে শুরু করে। তবে অল্প বয়সীদেরও হতে পারে এই রোগ।
২. ক্যান্সারের ওষুধের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার কারণেও এই রোগ হতে পারে। অধিক গর্ভনিরোধক ওষুধের ব্যবহারের কারণেও এই ধরনের সমস্যা হয়ে থাকে। এ ছাড়া গর্ভবতী নারীদের ক্ষেত্রেও এ ধরনের সমস্যা প্রায়ই দেখা যায়।
৩. দীর্ঘদিন শারীরিক কোনো সমস্যার কারণে যাঁরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন, প্যারালাইসিসের মতো শারীরিক অক্ষমতার কারণে যাঁরা দীর্ঘদিন চলাফেরা করতে পারেন না- তাঁদের ক্ষেত্রেও থ্রম্বোএম্বলিজমের ঝুঁকি তৈরি হয়।
৪. হৃদ্যন্ত্রে কোলেস্টেরল জমাট বাঁধলেও রক্তনালিতে রক্ত জমাট বাধে। ওবেসিটি, ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, লিপিড প্রোফাইলের তারতম্যে, শিকল সেল অ্যানিমিয়ার কারণেও শরীরে রক্ত জমাট বাধে।
৫. থ্রম্বোএম্বলিজম সমস্যা কিন্তু জিনবাহীও হতে পারে। রক্তে থাকা প্রোটিনের ভারসাম্য বিঘিœত হলে অল্প বয়সেই এ ধরনের সমস্যা হয়। তাই পারিবারিক ইতিহাসে এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা থাকলে সন্তানেরও এই সমস্যা হতে পারে। কোন কোন উপসর্গ দেখে সতর্ক হবেন?
১. হাতে, পায়ে রক্ত জমাট বাঁধলে সেই অংশে ব্যথা হয়। অংশটিও ফুলেও যেতে পারে। ওই স্থান ছুঁলে গরম অনুভ‚তিও হতে পারে। কোনো চোট-আঘাত না পেয়েও এমন উপসর্গ দেখতে পেলে সতর্ক হোন।
২. কখনও কখনও শরীরে কোনো অংশে রক্ত জমাট বাঁধলে সেই অংশটি লাল হয়ে যায়। কখনও আবার বিবর্ণও দেখায়। শরীরের ওই অংশে রক্তের অভাবের কারণেই ত্বক বিবর্ণ দেখায়। তাই শরীরের কোনো অংশ যদি বিবর্ণ দেখায়, সেখানে ব্যথা হয়, তা হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।
৩) ফুসফুসেও রক্ত জমাট বাঁধতে পারে। সে ক্ষেত্রে শরীরে অক্সিজ়েনের ঘাটতি শুরু হয়। এর ফলে শ্বাসকষ্ট, বুকে ব্যথার মতো উপসর্গ দেখা যায়।
৪. কাশি, কাশির সঙ্গে রক্তপাত শুরু হলেও সতর্ক হতে হবে। মাথায় রক্ত জমাট বাঁধলে মাথা ঘোরানো, মাথা ব্যথা, কথা বলতে সমস্যা, শরীর দুর্বল হয়ে যাওয়ার মতো উপসর্গ দেখা দিতে পারে।


এই বিভাগের আরো খবর
https://www.kaabait.com