• শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৫:৩১

উইলিয়ামসন সাদা বলের অধিনায়কত্ব ছাড়লেন

প্রতিনিধি: / ১৫ দেখেছেন:
পাবলিশ: বুধবার, ১৯ জুন, ২০২৪

স্পোর্টস: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব থেকে নিউ জিল্যান্ডের বিদায়ের পর দেশটির সাদা বলের অধিনায়কত্ব ছেড়ে দিলেন কেন উইলিয়ামসন। একইসঙ্গে নতুন মৌসুমের কেন্দ্রীয় চুক্তিও গ্রহণ না করারও সিদ্ধান্ত নিলেন সময়ের সেরা ব্যাটসম্যানদের একজন। নিউ জিল্যান্ড ক্রিকেট (এনজেসি) বুধবার এক বিবৃতিতে এই খবর জানিয়েছে। অধিনায়কত্ব ও কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে সরে দাঁড়ালেও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আরও লম্বা সময় খেলার ইচ্ছার কথা বলেছেন অগাস্টে ৩৪ বছর পূর্ণ করার অপেক্ষায় থাকা উইলিয়ামসন। ডানহাতি এই ব্যাটসম্যানের মতো লকি ফার্গুসনও ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছেন, নতুন মৌসুমের কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে সরে দাঁড়াবেন তিনি। আর বিশ্বকাপে শেষ ম্যাচের আগেই ট্রেন্ট বোল্ট বলেছেন, টি-টোয়েন্টির বিশ্ব মঞ্চে এটিই তার শেষ আসর। নেতৃত্ব ছাড়ার পর আগামী বছরের জানুয়ারিতে বিদেশি ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ খেলার আভাস দিয়েছেন উইলিয়ামসন। বিবৃতিতে অবশ্য কোনো নির্দিষ্ট লিগের কথা উল্লেখ করেননি তিনি। “সংস্করণভেদে দলকে সামনের দিকে এগিয়ে নিতে আমি সবসময়ই উন্মুখ। ভবিষ্যতেও আমি অবদান রাখতে চাই। তবে নিউ জিল্যান্ডের গ্রীষ্ম মৌসুমে বিদেশের সুযোগ গ্রহণের অপেক্ষায় থাকায় এবার কেন্দ্রীয় চুক্তি আমি নিতে পারছি না।” পাশাপাশি পরিবারকে আরও সময় দেওয়ার কথাও বলেন উইলিয়ামসন। “নিউ জিল্যান্ডের হয়ে সবসময় আমার জন্য মূল্যবান। দলকে কিছু দেওয়ার ইচ্ছে এখনও আগের মতোই আছে। তবে ক্রিকেটের বাইরে আমার জীবন বদলে গেছে। তো তাদের সঙ্গে আরও সময় কাটানো এবং দেশ ও দেশের বাইরে বিভিন্ন অভিজ্ঞতা নেওয়া এখন আমার কাছে আরও গুরুত্বপূর্ণ।” এর আগে ২০২২ সালে লাল বলের অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেয়েছিলেন উইলিয়ামসন। তখন টেস্ট ক্রিকেটে কিউইদের নেতৃত্বভার দেওয়া হয় টিম সাউদিকে। তিন সংস্করণ মিলিয়ে ৩৫৯ ম্যাচ খেলা উইলিয়ামসন জাতীয় দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন ৪০ টেস্ট, ৯১ ওয়ানডে ও ৭৫ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। তার অধিনায়কত্বে ২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপ ও ২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলে নিউ জিল্যান্ড। এ ছাড়া ২০২১ সালে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম আসরে চ্যাম্পিয়ন হয় কিউইরা। এবারের বিশ্বকাপে অবশ্য মুদ্রার অন্য পিঠটাও দেখেন উইলিয়ামসন। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ২০১৪ সালের পর প্রথমবার সেমি-ফাইনালে উঠতে ব্যর্থ হয় নিউ জিল্যান্ড। মূলত সুপার এইটেই উঠতে পারেনি তারা। গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায়ের পরই নেতৃত্বের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিলেন উইলিয়ামসন। যে কোনো সিরিজ বা টুর্নামেন্টের স্কোয়াড ঘোষণার সময় কেন্দ্রীয় চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটারদের অগ্রাধিকার দেয় নিউ জিল্যান্ড। এ ছাড়া চুক্তিতে থাকা ক্রিকেটাররা যে কোনো সময় জাতীয় দল ও ঘরোয়া সুপার স্ম্যাশ টুর্নামেন্টে খেলার জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। তবে দেশটির সর্বকালের সেরা ব্যাটসম্যানদের একজনের জন্য এবার ব্যতিক্রম ভাবনার দুয়ার খোলা রাখার কথা জানালেন এনজেসির প্রধান নির্বাহী স্কট উইনিঙ্ক। “জানুয়ারিতে নিউ জিল্যান্ডের খুব বেশি ব্যস্ততা নেই। এর বাইরে সে বø্যাকক্যাপসের হয়ে খেলার জন্য থাকবে। জাতীয় দলের জন্য কেন্দ্রীয় চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটারদের প্রাধান্য দেওয়ার একটা বিষয় থাকে এনজেসিতে। তবে আমাদের সর্বকালের সেরা ব্যাটসম্যানের জন্য খুশি মনে ব্যতিক্রম করব আমরা।”


এই বিভাগের আরো খবর
https://www.kaabait.com