• শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪, ০১:০৭
সর্বশেষ :
রেমালের জলোচ্ছাসে মোরেলগঞ্জে ৩ শ’ কিলোমিটার সড়ক ক্ষতিগ্রস্ত পঞ্চগড়ে ১ লাখ ৬৪ হাজার শিশু পাবে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল সংবাদ প্রকাশের পর ক্যান্সারে আক্রান্ত মরিয়মকে চিকিৎসার অর্থ সহায়তা  সেতুমন্ত্রীর ঈদ পরবর্তী দুর্ঘটনা রোধে সড়কে তদারকি বাড়ানোর নির্দেশ এক লাখের বেশি কেন্দ্রে খাওয়ানো হবে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল রিমালে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৪ পাকিস্তানি নিহত ইরান সীমান্তে সীমান্তরক্ষী বাহিনীর গুলিতে প্রাণ গেল একজনের উড়োজাহাজের সচল ইঞ্জিনের মধ্যে পড়ে ব্রাজিলের রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহার ইসরায়েল থেকে ইসরায়েল রাফায় বোমাবর্ষণ অব্যাহত রেখেছে

ইন্দোনেশিয়ায় বন্যায় নিহত ৫৮, উদ্ধার অভিযান চলছে

প্রতিনিধি: / ১৫ দেখেছেন:
পাবলিশ: বুধবার, ১৫ মে, ২০২৪

বিদেশ : ইন্দোনেশিয়ার তানাহ দাতার জেলা ও এর আশপাশে আকস্মিক বন্যা ও শীতল লাভা প্রবাহের কারণে নিখোঁজ থাকা ব্যক্তিদের সন্ধানে উদ্ধারকর্মীরা অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে। বন্যায় বাড়িঘর ভেসে যাওয়ায় এখন পর্যন্ত ৫৮ জনের মৃত্যুর খবর দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। খবর এএফপির। ইন্দোনেশিয়ার সবচেয়ে বেশি সক্রিয় আগ্নেয়গিরির এই জেলায় গত শনিবারের বেশ কয়েক ঘণ্টার মৌসুমি বৃষ্টিপাতের কারণে সৃষ্টি হয় কাদা ও পাথরের প্রবাহ। এতে ভেসে যায় অনেক বাড়িঘর, ধ্বংস হয়ে যায় রাস্তা ও মসজিদ। বুধবার দেশটির জাতীয় দুর্যোগ বিষয়ক সংস্থার প্রধান সুহারায়ান্তো বলেন, ‘সর্বশেষ হিসাব অনুযায়ী মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ৫৮ জনে।’ তিনি জানান, এখনও নিখোঁজ রয়েছে ৩৫ জন। এর আগে গত মঙ্গলবার স্থানীয় উদ্ধারকর্মীরা জানিয়েছিলেন নিখোঁজ লোকের সংখ্যা ২২ জন। এ ছাড়া বিভিন্ন ঘটনায় আহত হয়েছে আরও ৩৩ জন। উদ্ধারকর্মীরা জানিয়েছেন, অনেক মৃতদেহ পাওয়া গেছে পাশের নদীতে। আগ্নেয়গিরি থেকে ভেসে আসা লাভা ও কাদা বৃষ্টির পানির সঙ্গে মিশে প্রচÐ গতিতে আশপাশের এলাকাগুলোতে ছড়িয়ে পড়ে আর এতে ভেসে যায় বিস্তীর্ণ এলাকা। এ সময় আগ্নেয়গিরির গা বেয়ে শীতল লাভার সঙ্গে বের হয়ে আসে ছাই, বালি আর নুড়ি পাথর। জাতীয় দুর্যোগ সংস্থার প্রধান সুহারায়ান্তো জানিয়েছেন, বন্যার কারণে যে জঞ্জাল পুরো এলাকজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে, তা পরিষ্কার করতে ভারী যন্ত্রপাতি ব্যবহার করা হচ্ছে। তবে ছয়টি জেলার পরিবহণ চলাচল এখনও বন্ধ রয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাগুলো থেকে তিন হাজার ৩০০ মানুষকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। উদ্ধার কাজে কর্তৃপক্ষ গতকাল বুধবার আবহাওয়া পরিবর্তন প্রযুক্তি ব্যবহার করছে, যা সাধারণত কৃত্রিম বৃষ্টিপাত ঘটানোর জন্য ব্যবহার করা হয়। বর্ষাকালে ইন্দোনেশিয়ায় বন্যায় কারণে অনেক ভ‚মিধসের ঘটনা ঘটে তাকে। ২০২২ সালে সুমাত্রা দ্বীপে বন্যার কারণে ২৪ হাজার লোককে সরিয়ে নেওয়া হয়েছিল।


এই বিভাগের আরো খবর
https://www.kaabait.com