• রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ০২:১২

ইতালিকে হারিয়ে ইউরোর নক আউট পর্বে স্পেন

প্রতিনিধি: / ১৮ দেখেছেন:
পাবলিশ: শুক্রবার, ২১ জুন, ২০২৪

স্পোর্টস: হাইভোল্টেজ ম্যাচে ইতালিকে ১-০ গোলে হারিয়ে ইউরো ২০২৪’এর নক আউট পর্ব নিশ্চিত করেছে স্পেন। দিনের আরেক ম্যাচে ফেবারিট ইংল্যান্ডকে ১-১ গোলে রুখে দিয়েছে ডেনমার্ক। তিনবারের বিজয়ী স্পেন জেলসেনকার্চেনের এরেনা অশালকেতে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ইতালির থেকে ভাল খেলেই জয় ছিনিয়ে নিয়েছে। ৫৫ মিনিটে রিকার্ডো কালাফিওরির আত্মঘাতি গোলে স্পেনের জয় নিশ্চিত হয়। গ্রুপ পর্বে টানা দ্বিতীয় জয়ে বি-গ্রুপ থেকে শীর্ষ দল হিসেবেই পরের রাউন্ডে উঠেছে স্পেন। গ্রুপ পর্বে এখনো এক ম্যাচ বাকি। তার আগেই নিশ্চিত হয়ে গেছে আগামী ৩০ জুন কোলনে শেষ ষোলর ম্যাচে তারা খেলবে, প্রতিপক্ষ হিসেবে থাকবে গ্রুপ পর্ব শেষ করা সেরা তৃতীয় স্থান লাভকারী একটি দল। এদিকে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ইতালি এখনো নক আউট পর্বের টিকেট নিশ্চিত করতে পারেনি। তবে সোমবার লিপজিগে শেষ ম্যাচে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে এক পয়েন্ট নিশ্চিত করতে পারলেই লুসিয়ানো স্পালেত্তির দল  গ্রুপের দ্বিতীয় দল হিসেবে পরের রাউন্ডে যাবে। স্পেন ও ইতালি ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশীপে টানা পঞ্চম ম্যাচে একে অপরের মুখোমুখি হয়েছিল। তিন বছর আগে ওয়েম্বলিতে সেমিফাইনালে পেনাল্টিতে পরাজিত হবার প্রতিশোধই যেন স্পেন তুলে নিয়েছে। যদিও আরো বড় ব্যবধানে তারা জিততে পারতো। ইতালি গোলরক্ষক গিয়ানলুইগি ডোনারুমা বেশ কয়েকটি আক্রমণ রুখে দিয়ে ব্যবধানে বাড়াতে দেননি। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে লামিন ইয়ামাল গোল প্রায়ই পেয়েই গিয়েছিলেন। দুর্দান্ত ফর্মে থাকা নিকো উইলিয়ামসের শট পোস্টে লেগে ফেরত আসে। স্প্যানিশ কোচ লুইস ডি লা ফুয়েন্তে বলেছেন, ‘বিশ্বের অন্যতম সেরা একটি দলের বিপক্ষে শুধুমাত্র এই ফলাফলে আমি খুশী ও গর্বিত না, বরং যেভাবে আমরা আজ খেলেছি তা সত্যিই অবিশ্বাস্য। এদিকে স্পালেত্তি বলেছেন, ‘বিষয়টা একেবারেই সহজ, তারা আমাদের থেকে দ্রুতগতির, একইসাথে দল হিসেবেও তারা বেশ ঐক্যবদ্ধ। তাদের তরুণরাই আজ পার্থক্য গড়ে দিয়েছে। আমরা তাদের তুলনায় সঠিক সমেয় জলে উঠতে পারিনি।’ এর আগে দিনের আরেক ম্যাচে ফ্রাঙ্কফুর্টে গ্রুপ-সি’তে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ইংল্যান্ডের সামনে সুযোগ ছিল ডেনমার্ককে হারিয়ে কালই শেষ ষোল নিশ্চিত করা। কিন্তু নামের সাথে সুবিচার করতে না পারা ইংলিশদের শেষ পর্যন্ত এক পয়েন্ট নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে। প্রথমবারের মত ইউরোপিয়ান শিরোপা জয়েও তাদের নিয়ে এখন শঙ্কা দেখা দিয়েছে। ২০২০ ইউরো সেমিফাইনালে এই ড্যানিশদের হারিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করেছিল ইংল্যান্ড। ১৮ মিনিটে হ্যারি কেনের গোলে এগিয়ে যায় ইংল্যান্ড। প্রথম ম্যাচে স্লোভেনিয়ার সাথে ১-১ গোলে ড্র করা ডেনমার্ক এই ম্যাচে অন্তত এক পয়েন্ট নিশ্চিত করতেই মাঠে নেমেছিল। তাতে তারা সফলও হয়েছে। বিরতির আগেই মার্টিন হুরমান্ডের দুর্দান্ত স্ট্রাইকে ড্যানিশরা সমতায় ফিরে। ফিল ফোডেনের শট পোস্টে লাগলে হতাশ হতে হয় ইংল্যান্ডকে। আন্দ্রেস ক্রিস্টেনসেন ম্যাচের শেষভাগে অল্পের জন্য ডেনমার্ককে গোল উপহার দিতে পারেননি। আগামী মঙ্গলবার গ্রুপ-সি’র শেষ ম্যাচে এই গ্রুপের দলগুলোর ভাগ্য নির্ধারিত হবে। প্রতিটি দলই দুটি করে ম্যাচ খেলেছে। চার পয়েন্ট নিয়ে ইংল্যান্ড রয়েছে শীর্ষে, দুই পয়েন্ট করে অর্জন করে পরের দুই অবস্থানে রয়েছে ডেনমার্ক ও  । তলানির দল সার্বিয়ার সংগ্রহ এক পয়েন্ট। শেষ ম্যাচে কোলনে স্লোভেনিয়ার সাথে অন্তত ড্র করলেই ইংল্যান্ডের শীর্ষ দল হিসেবে পরের রাউন্ড নিশ্চিত হবে। ইংলিশ কোচ গ্যারেথ সাউথগেট বলেছেন, ‘কিছু একটা করে দেখানোর চ্যালেঞ্জটাই গুরুত্বপূর্ণ, যা আগে কখনো কেউ করেনি। অবশ্যই আজকের এই ফলাফলে আমরা হতাশ। এই পর্যায়ে এসে এই ধরনের পারফরমেন্স কাঙ্খিত নয়।’ দিনের শুরুতে গ্রুপ-সি’র আরেক ম্যাচে লুকা জোভিচের ৯৫ মিনিটের গোলে স্লোভেনিয়াকে ১-১ গোলে রুখে দিয়েছে সার্বিয়া। মিউনিখে ৬৯ মিনিটে স্লোভেনিয়াকে এগিয়ে দিয়েছিলেন ইয়ান জারনিসনিক। কিন্তু সার্বিয়া নিজেদের উপর আস্থা রেখে শেষ পর্যন্ত লড়াই করে গেছে। কর্ণার থেকে দারুন এক হেডে এসি মিলানের স্ট্রাইকার জোভিচ সার্বিয়াকে রক্ষা করেন। কার্যত এটাই ছিল ম্যাচের শেষ আক্রমন।


এই বিভাগের আরো খবর
https://www.kaabait.com