• শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৬:৫৬

আলিয়ার হঠাৎ রহস্যময় পোস্ট

প্রতিনিধি: / ১১ দেখেছেন:
পাবলিশ: বুধবার, ১২ জুন, ২০২৪

বিনোদন: সুযোগ পেলেই বলিউডের তারকাজুটি আলিয়া ভাট ও রণবীর কাপুরকে খুঁচিয়ে দিতেন কঙ্গনা রণৌত। কোনো প্রকার সুযোগ পেলেই সামাজিকমাধ্যমে লিখতেন তাদের নিয়ে। এবার কঙ্গনার গালে নিরাপত্তারক্ষীর চড় পড়তেই যেন খুশি আলিয়া। সামাজিকমাধ্যমে পড়ালেন সচেতনতার পাঠ। কঙ্গনাকে প্রমাণ সাইজের চড় মেরে গোটা ভারত নাড়িয়ে দিয়েছেন নিরাপতারক্ষী কুলবিন্দর কৌর। অনেকেই পক্ষে বিপক্ষে প্রকাশ করছেন নিজেদের মত। ঠিক সেসময় নেট দুনিয়ায় ভেসে উঠল রণবীর ঘরণী আলিয়ার সততা বিষয়ক একটি পোস্ট। পোস্টে তিনি লেখেন- ‘যখন কেউ তোমাকে দেখছে না, তুমি যা করো, সেটাই তোমার সততা। এটা হলো সবসময় সঠিক কাজ করা। সেটা যদি তোমার পক্ষে প্রতিক‚ল হয় তাহলেও। এটা তোমার মধ্যে থাকা একটা কম্পাস। একটা রাডার যা তোমাকে নির্দিষ্ট পথে নিয়ে চলে, তোমার চারপাশের সবকিছু তোমাকে অন্যদিকে নিয়ে চলতে চাইলেও। অনেকে আবার মনে করেন, আপনার খ্যাতিই হলো আপনার সততা।’ তিনি আরও লিখেন- ‘তবে দুটি সম্পূর্ণ আলাদা জিনিস। আপনার খ্যাতি হলো মানুষের মনে আপনার সততাকে নিয়ে থাকা উপলব্ধি। কারণ এটা হলো অন্য লোকেদের ধারণা আপনাকে নিয়ে। সেটা সঠিক হতেও পারে, আবার নাও পারে। অন্যরা তোমার খ্যাতিকে নির্ধারণ করতে পারে, কিন্তু সত্যটা নির্ধারণ করা তোমার হাতে।’ পোস্টে কঙ্গনার নাম উল্লেখ করেননি আলিয়া। সেকারণে কঙ্গনাকে খোঁচানোর বিষয়টি স্পষ্ট নয়। তবে অনেকের ধারণা বিজেপির নবীন সংসদ সদস্যকেই খোঁচা দিয়েছেন তিনি। কেননা আলিয়া সততা নিয়ে এই পাঠটি দিয়েছেন কঙ্গনার পক্ষে এক সাংবাদিকের দেওয়া পোস্টের পর। সাংবাদিক ফায়ে ডিসুজা স¤প্রতি কঙ্গনা এবং সিআইএসএফ কনস্টেবল জড়িত চড়ের কাÐের নিন্দা করে একটি পোস্ট লিখেছিলেন। যাতে লেখা হয়েছিল, ‘বিমানবন্দরে সাংসদ কঙ্গনাকে চড় মারার ঘটনা- সহিংসতা কখনোই উত্তর হতে পারে না। বিশেষ করে গান্ধীর অহিংসার আদর্শ থেকে জন্ম নেওয়া আমাদের দেশে তো নয়ই। আমরা কারও দ্বারা তৈরি মতামত এবং বিবৃতিগুলির সঙ্গে কতটা দ্বিমত পোষণ করছি তা বিবেচ্য নয়, আমরা কখনও সহিংসতার সঙ্গে প্রতিক্রিয়া জানাতে পারি না এবং আমাদের এটিকে ক্ষমা করা উচিত নয়। এটি বিশেষত বিপজ্জনক যখন নিরাপত্তা কর্মীর ইউনিফর্ম পরে কেউ হিংসাত্মক প্রতিক্রিয়া দেখায়।’

 

 


এই বিভাগের আরো খবর
https://www.kaabait.com