• শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৬:০২

আর্জেন্টিনা-চিলির নতুন লড়াই

প্রতিনিধি: / ৮ দেখেছেন:
পাবলিশ: মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০২৪

স্পোর্টস: নতুন অধ্যায় লেখার দুয়ারে দাঁড়িয়ে আর্জেন্টিনা ও চিলি। নতুন লড়াইয়ের মঞ্চ পুরোনো, নিউ জার্সির মেটলাইফ স্টেডিয়াম। ২০১৬ সালে এই মাঠেই কোপা আমেরিকার ফাইনালে চিলির বিপক্ষে হেরেছিল আর্জেন্টিনা। ২০১৫ সালে সান্তিয়াগোয় আর্জেন্টিনাকেই হারিয়ে কোপা আমেরিকায় নিজেদের ইতিহাসের প্রথম শিরোপা জিতেছিল চিলি। পরের বছরও তারাই ভেঙেছিল লিওনেল মেসির শিরোপা স্বপ্ন। চিলি দুটি ফাইনালেই জিতেছিল টাইব্রেকারে। বাংলাদেশ সময় বুধবার ‘এ’ গ্রæপের ম্যাচে চিলির মুখোমুখি হবে আর্জেন্টিনা। এর আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে আট বছর আগের ওই ফাইনালে স্মৃতি ভুলে যাওয়ার কথা বললেন আর্জেন্টিনা কোচ লিওনেল স্কালোনি। “২০১৬ সালের ফাইনালে কোনো কিছুই এখন আর অবশিষ্ট নাই। আমরা যেমন এখন বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন। গত ম্যাচের আগে বলেছিলাম, এটা এখন শেষ হয়ে গেছে। ফুটবল এমনই।” “সময় এগিয়ে যায়, চাকা ঘুরতে থাকে। বল কখনও থামে না আর সত্যিই কোনো কিছু রেখে যায় না। সব কিছুই ইতিহাস। অতীতে ফিরে যাওয়ার কোনো অর্থ নাই।” টানা দুটি আসরের ফাইনালে টাইব্রেকারে হারার পর ২০১৯ আসরে দীর্ঘ খরা কাটিয়ে কোপা আমেরিকার শিরোপা জিতে আর্জেন্টিনা। সাফল্যের ধারায় থাকা দলটি ২০২২ সালে জেতে বিশ্বকাপ। চলতি বছরের শুরুতে চিলির কোচ হয়ে রিকার্দো গারেকা উন্মুখ হয়ে আছেন আর্জেন্টিনার বিপক্ষে খেলার জন্য। জন্মভ‚মির বিপক্ষে খেলা সব সময়ই তার কাছে ‘স্পেশাল।’ আর্জেন্টিনার বিপক্ষে এখনও জয়শূন্য গারেকা। ২০১৫ থেকে ২০২২ সাল পর্যন্ত পেরুর কোচ থাকার সময়ে চার ম্যাচের দুটি হেরেছিলেন, দুটি ড্র হয়েছিল। “আর্জেন্টিনার বিপক্ষে খেলা সবসময়ই বিশেষ। এটা কেবলই একটা জাতীয় দল নয়। আর্জেন্টিনার নিজের কারণেই এর গুরুত্ব, এটা যে সবের প্রতিনিধিত্ব করে, সব মিলিয়ে যৌক্তিক কারণেই এটা আমার কাছে বিশেষ।” কানাডার বিপক্ষে ২-০ গোলের জয় দিয়ে আসর শুরু করা আর্জেন্টিনা পরের ম্যাচেই শেষ আট নিশ্চিত করে ফেলতে পারে। পেরুর বিপক্ষ গোলশূন্য ড্রয়ে আসর শুরু করা চিলির অপেক্ষায় কঠিন লড়াই।


এই বিভাগের আরো খবর
https://www.kaabait.com