• শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০১:০২

অস্ট্রেলিয়ার ‘নতুন ম্যাক্সওয়েল’ আইপিএলে

প্রতিনিধি: / ৩১ দেখেছেন:
পাবলিশ: শুক্রবার, ১৫ মার্চ, ২০২৪

স্পোর্টস: গত ডিসেম্বরে নিলামে দল না পেলেও শেষ পর্যন্ত আইপিএলে সুযোগ পেয়ে গেলেন জেইক ফ্রেজার-ম্যাকগার্ক। চোটাক্রান্ত দক্ষিণ আফ্রিকান পেসার লুঙ্গি এনগিডির বদলি হিসেবে অস্ট্রেলিয়ার তরুণ ব্যাটিং সেনসেশনকে দলে নিল দিল্লি ক্যাপিটালস। আগ্রাসী মানসিকতা ও ঝড়ো ব্যাটিং দিয়ে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটে এর মধ্যেই ‘নতুন ম্যাক্সওয়েল’ নামে খ্যাতি পেয়ে গেছেন ফ্রেজার-ম্যাকগার্ক। অস্ট্রেলিয়ান কিংবদন্তি ও দিল্লির প্রধান কোচ রিকি পন্টিং কিছুদিন আগেই উচ্ছ¡সিত প্রশংসা করেছেন এই তরুণের। এবার একজন পেসারের বদলি হিসেবে এই ব্যাটসমানকে দলে নিয়ে তার ওপর আস্থাই যেন আরও বুঝিয়ে দিলেন সাবেক অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক। নিলামের ভিত্তিমূল্য ৫০ লাখ রুপিতেই দিল্লিতে খেলবেন ফ্রেজার-ম্যাকগার্ক। কয়েক মাস ধরেই অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটের সবচেয়ে আলোচিত নামগুলির ২১ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যান। বয়সভিত্তিক ক্রিকেট থেকেই অবশ্য তিনি নজর কেড়েছেন। স্রেফ ১৭ বছর বয়সে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট ও লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে অভিষেক তার ভিক্টোরিয়ার হয়ে। দুটিতেই করেছেন ফিফটি। আগ্রাসী ব্যাটিং দিয়ে আলাদা করে নিজেকে চিনিয়েছেন তখন থেকেই। পরে খেলেছেন ২০২০ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে। এরপর ঘরোয়া ক্রিকেটে অসাধারণ ফিল্ডিং দিয়ে নজর কাড়লেও ব্যাট হাতে ধারাবাহিক হতে পারছিলেন না একদমই। ভিক্টোরিয়া থেকে এই মৌসুমে সাউথ অস্ট্রেলিয়ায় পাড়ি জমানোর পর নিজেকে নতুনভাবে মেলে ধরেন তিনি। গত অক্টোবরে ক্রিকেট বিশ্বে সাড়া ফেলে দেন মার্শ কাপে ২৯ বলে সেঞ্চুরি করে। এবি ডি ভিলিয়ার্সের ৩১ বলের রেকর্ড পেছনে ফেলে লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটের ইতিহাসের দ্রæততম সেঞ্চুরি সেটি। ১০ চার ও ১৩ ছক্কায় সেদিন তিনি করেন ৩৮ বলে ১২৫। কদিন পর প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে প্রথম সেঞ্চুরির স্বাদও পেয়ে যান বলের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে রান করে। এরপর বিগ ব্যাশেও তার ব্যাট ছিল উত্তাল। সেখানে ২৫৭ রান করেন তিনি ১৫৮.৬৪ স্ট্রাইক রেটে। এরপর দেশের বাইরের ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে অভিষেক হয়ে যায় তার সংযুক্ত আরব আমিরাতে আইএল টি-টোয়েন্টিতে। সেখানে অভিষেকে ২৩ বলে ৫৫ রানের ইনিংস খেলেন ৭ ছক্কায়। ‘নতুন ম্যাক্সওয়েল’ তকমা ততদিনে আরও জোরাল হয়ে গেছে তার সঙ্গে। কাকতালীয়ভাবে গেøন ম্যাক্সওয়েলকে বিশ্রাম দেওয়াতেই জানুয়ারির শেষ দিকে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের অস্ট্রেলিয়া দলে সুযোগ পেয়ে যান তিনি। সেই সিরিজে দুটি ওয়ানডে খেলে রান করেন ৫১। বড় রান না পেলেও বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ের ঝলক দেখান সেখানেও। রান করেন তিনি ২২১.৭৩ স্ট্রাইক রেটে। পরে অস্ট্রেলিয়ার টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডে জায়গা পেলেও ম্যাচ খেলার সুযোগ পাননি। এখনও পর্যন্ত ১৮টি লিস্ট ‘এ’ ইনিংস খেলে তার স্ট্রাইক রেট ১৪৩.৮৩, ৩৫ ইনিংস খেলে টি-টোয়েন্টিতে স্ট্রাইক রেট ১৩৩.৫৪। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ১৬ ম্যাচ খেলে এখনও তার রেকর্ড ভালো নয় মোটেও। তবে গত মাসেই পন্টিং বলেছেন, ডেভিড ওয়ার্নারের মতো সব সংস্করণেই তারকা হওয়ার রসদ আছে ফ্রেজার-ম্যাকগার্কের ভেতর। আপাতত এই তরুণের জন্য শেখার দারুণ মঞ্চ হতে পারে আইপিএলও। এনগিডি ছিটকে গেছেন পিঠের নিচের অংশের চোট থেকে সেরে উঠতে না পারায়। দিল্লি আগেই হারিয়েছে হ্যারি ব্রæককে। পারিবারিক কারণে এবারের আসর থকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন এই ইংলিশ ব্যাটসম্যান। তার জায়গায় বদলি কাউকে এখনও নেননি পন্টিংরা।


এই বিভাগের আরো খবর
https://www.kaabait.com